Skip to main content

২০২০ সালের সেরা ৫ টি প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ যেগুলো আপনি সিখতে পারেন

আমি কোথাও একটা যেন পড়েছি যে একজন প্রোগ্রামারকে প্রতি বছর একটি নতুন প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ শেখার উচিত (তবে আমি মনে করি এটি অনেকক্ষত্রে সঠিক নয়)। তবে আপনি যদি এটি না করতে পারেন তবে আমি কমপক্ষে নীচের পাঁচটি প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ ভালো করে শিখার জন্য পরামর্শ দিচ্ছি আপনার কর্মজীবনে।

প্রতিটি সংস্থা একটি চতুষ্পদী প্রোগ্রামার এবং একটি অলরাউন্ডারকে পছন্দ করে যারা দ্রুত স্ক্রিপ্ট লেখার পক্ষে যথেষ্ট বহুমুখী এবং জটিল জাভা প্রোগ্রামও লিখতে পারেন। একজন প্রবীণ ডেভেলপারকে একাধিক প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ শেখার জন্য এটি প্রায় বাধ্যতামূলক।

ইন্টার্ভিউয়াররা এমন ইঞ্জিনিয়ারদের বেশি মনোযোগ দিচ্ছেন যাদের বিভিন্ন প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ সম্পর্কে ধারণা আছে যেমন: সি/সি++, জাভা, পাইথন ইত্যাদি।

আমি ব্যক্তিগতভাবে সফ্টওয়্যার ইঞ্জিনিয়ারদের পছন্দ করি যাদের সি++ বা জাভা উভয় ক্ষেত্রেই যথেষ্ট অভিজ্ঞতা আছে এবং গ্রোভি, পার্ল বা পাইথনে স্ক্রিপ্ট লিখতে পারেন।

অনেক সময় একটি ছোট স্ক্রিপ্ট অ্যাড-হক টাস্কের জন্য দ্রুত এবং যথেষ্ট ভালো হয় এবং আমি চাই না যে আমার প্রোগ্রামার জাভায় পুরো দিনটি সিএসভি ফাইলগুলি পড়ার জন্য কোনও প্রোগ্রাম লিখতে বা টিসিপি/ইউডিপি পোর্ট থেকে কোনও বার্তা নিয়ে কাটাক।

আমি কেন এই পাঁচটি প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ বেছে নিয়েছি? আমার কারণগুলি ব্যবহারিক এবং সহজবোধ্য। আমি ল্যাঙ্গুয়েজগুলির ব্যবহার, দৃষ্টান্ত এবং জনপ্রিয়তার উপর ভিত্তি করে প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ সিলেক্ট করেছি।

উদাহরণস্বরূপ, আপনি যদি অ্যাপ্লিকেশন ডেভেলপ করতে চান এবং কোনও কাজের সন্ধান করতে চান তবে আপনি জাভা উপেক্ষা করতে পারবেন না। জাভা স্ক্রিপ্ট, যা ওয়েবের প্রায় সর্বত্র বিস্তৃত।

সি হ’ল এমন একটি ভাষা যা আমি দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি যে ডেভেলপারদের তাদের কেরিয়ারের শুরুতে শিখতে হবে কারণ এটি তাদের সিস্টেমের আরও কাছে যেতে এবং কী প্রোগ্রামিংয়ের ধারণাটি প্রায়শই জেভিএম বা সিএলআর এর আড়ালে লুকিয়ে রাখতে সহায়তা করবে।

পাইথনকে চয়ন করার কারণ হল স্ক্রিপ্টিং ল্যাঙ্গুয়েজ যদিও আপনি পার্ল বা গ্রোভির সাথেও বিকল্প রাখতে পারেন। অনলাইনে সহায়তার কথা এলেও পাইথনটিও বেশি। প্রচুর পাইথন মডিউল উপলব্ধ রয়েছে যা কয়েক মিনিটের মধ্যে আপনার কাজটি সম্পন্ন করারে পারে।

একইভাবে, হাস্কেল বা স্কালা’র মতো একটি অবজেক্ট ওরিয়েন্টড এবং একটি কার্যকরী প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ শেখা আপনার চিন্তাভাবনা এবং প্রোগ্রামিংয়ের জ্ঞানকে প্রশস্ত করবে। আপনি এই পোস্টে শীর্ষস্থানীয় ৫ টি প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ শেখার আরও কারণগুলি খুঁজে পাবেন।

২০২০ সালের সেরা ৫ টি প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ

২০২০ সালের সেরা ৫ টি প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ যা প্রত্যেক প্রোগ্রামারের শেখা উচিৎ।

আজাইরা কথা বাদ দিয়ে, এখানে আমার ৫ টি প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজের তালিকা রয়েছে যা প্রতিটি প্রোগ্রামার বা সফ্টওয়্যার ডেভেলপারকে শেখার চেষ্টা করা উচিত।

এখানে ল্যাঙ্গুয়েজের মিশ্রণ রয়েছে, উদাহরসরূপঃ অবজেক্ট-ওরিয়েন্টেড, ফাংশনাল, স্ক্রিপ্টিং, ল্যাঙ্গুয়েজ, যা নিম্ন স্তরের নিয়ন্ত্রণ এবং ল্যাঙ্গুয়েজের প্রস্তাব করে, যা সার্ভার-সাইড ডেভেলপে ব্যাপকভাবে ব্যবহৃত হয়।

১. জাভা (Java)

জাভা গত দুই দশকের অন্যতম জনপ্রিয় প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ এবং সার্ভার-সাইড অ্যাপ্লিকেশন ডেভেলপে বিশ্বের উপর নিয়ন্ত্রণ করে।

এটি অ্যান্ড্রয়েড এবং এন্টারপ্রাইজ ওয়েব ডেভলপমেন্ট ওয়ার্ল্ড ব্যবহার করে মোবাইল গেমস এবং অ্যাপ্লিকেশন ডেভেলপে একটি বিশাল বাজারের অংশীদারিত্ব ধারণ করে।

জাভা WORA’র (Write Once Run Anywhere) একটি সহজ চিন্তায় শুরু হয়েছিল। তবে সময়ের সাথে সাথে জাভা সর্বত্র ছড়িয়ে পড়ে।

একটি শক্তিশালী, স্কেলযোগ্য সার্ভার-সাইড অ্যাপ্লিকেশন তৈরি করতে আপনার জাভা শিখতে হবে। আপনি জাভাতে যে কোনও জটিলতার প্রকল্প তৈরি করতে পারেন; এর সহায়তা করার জন্য টুলস, টেকনোলজি এবং কমিউনিটি রয়েছে।

আপনি যদি জাভা শেখার সিদ্ধান্ত নেন, তবে ইউডেমি ফুল জাভা মাস্টার ক্লাস শুরু করার জন্য একটি দুর্দান্ত কোর্স। এটি জাভা সম্পর্কিত সমস্ত প্রয়োজনীয় ধারণাটি ইউজফুল ডিটেলে আবৃত করেছে।

জাভা কিছু শীর্ষস্থানীয় সংস্থা যেমন বিনিয়োগ ব্যাংক, বীমা সংস্থাগুলি দ্বারা ব্যবহৃত হয় এবং আপনি অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন তৈরি করে জনগণের কাছে পৌঁছাতে পারেন।

যদি আপনি এখনও নিশ্চিত না হন তবে আমি আপনাকে জাভা শেখার এই ১০ টি কারণ চেক করে দেখার পরামর্শ দিচ্ছি।

২. পাইথন (Python)

পাইথন হ’ল বিশ্বজুড়ে সবচেয়ে জনপ্রিয় প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজগুলির মধ্যে একটি। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে পাইথন ও জাভা’কে অনেকগুলি একাডেমিক কোর্স থেকে শুরু করে একটি পছন্দের ল্যাঙ্গুয়েজ হিসাবে প্রতিস্থাপন করেছে। পাইথন শিখে আপনি কী অর্জন করবেন? অনেক…

পাইথন সেই ল্যাঙ্গুয়েজগুলির মধ্যে একটি যা একটি স্ক্রিপ্টিং ল্যাঙ্গুয়েজের পাশাপাশি বড় প্রকল্পের জন্য উপযুক্ত অবজেক্ট-ভিত্তিক ল্যাঙ্গুয়েজ হিসাবে ব্যবহার করা যেতে পারে।

রেডিট, জ্যাঙ্গোর মতো আরও অনেক জনপ্রিয় ওয়েবসাইট পাইথন ফ্রেমওয়ার্ক দিয়ে নির্মিত। সাম্প্রতিক সময়ে, অনেক বড় সংস্থাগুলি পাইথন-ভিত্তিক কাঠামোর দিকেও চলেছে।

পাইথন ক্রমবর্ধমান নতুন প্রজন্মের প্রযুক্তি যেমন মেশিন লার্নিং, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা এবং ডেটা সায়েন্সের জন্য ব্যবহৃত হয়। আশ্চর্যের কিছু নেই, কারণ এটি TensorFlow, সাইকিট-লার্ন এবং অন্যান্যগুলির মতো দুর্দান্ত কিছু মেশিন লার্নিং লাইব্রেরী পেয়েছে।

যদিও আমি স্ক্রিপ্টগুলি লেখার জন্য পাইথন ব্যক্তিগতভাবে ব্যবহার করি এবং এটি দ্রুত কিছু করার জন্য খুব দরকারী যেমন আপনি জাভাতে ২০ মিনিটের বিপরীতে পাইথনের ৫ মিনিটের মধ্যে একটি ইউডিপি মেসেজ শ্রোতাকে লিখতে পারেন। সংকলন, প্যাকেজিং এবং তারপরে ব্যবহার সম্পর্কে ভুলে যান। অ্যাড-হক কাজের জন্য পাইথন স্ক্রিপ্টগুলি শুধু লিখুন।

আপনি যদি পাইথন শিখতে আগ্রহী হন তবে ফুল পাইথন বুটক্যাম্প কোর্স শুরু করতে পারেন।

৩. জাভাস্ক্রিপ্ট (JavaScript)

আপনি এই তালিকায় জাভাকে সি++ এবং পাইথন দিয়ে রুবিতে রিপ্লেস করতে পারেন। তবে সত্যই, আজকের বিশ্বে জাভাস্ক্রিপ্টের কোনও রিপ্লেস নেই। গত ৫ বছরে, জাভাস্ক্রিপ্ট পুরোপুরি বিশ্বকে আধিপত্য করেছে।

নোড জেএস, অ্যাঙ্গুলার এবং রিয়্যাক্ট এর মতো ফ্রেমওয়ার্ক এবং লাইব্রেরি সহ আপনি ইউজার ইন্টারফেস ডেভেলপের জন্য সার্ভার সাইডে জাভাস্ক্রিপ্ট ব্যবহার করতে পারেন।

জাভাস্ক্রিপ্টের অপ্রতিরোধ্য সাফল্যের কিছু অংশ jQuery এ যায়, যা আপনাকে ক্লায়েন্ট-সাইডে জাভাস্ক্রিপ্ট ব্যবহার করার পদ্ধতি সত্যই পরিবর্তিত করেছে।

একটি জাভা প্রোগ্রামার হিসাবে, জেএসপি এবং সার্ভলেট ভিত্তিক অ্যাপ্লিকেশনটিতে কাজ করে আপনার jQuery এবং জাভাস্ক্রিপ্ট উভয়ই ব্যবহার করার অসংখ্য সুযোগ রয়েছে।

এই ল্যাঙ্গুয়েজের জ্ঞান আমাদের কোন বৈশিষ্ট্যটি সার্ভার-সাইডে প্রয়োগ করা উচিত এবং কোনটি ক্লায়েন্ট-সাইডে পরিচালনা করা যেতে পারে তা সিদ্ধান্ত নিতে সহায়তা করে।

আপনি যদি স্ক্র্যাচ এবং গভীরভাবে জাভাস্ক্রিপ্ট শিখতে চান তবে ইউডেমির ফুল জাভাস্ক্রিপ্ট কোর্সে আপনি যোগ দিতে পারেন।

৪. সি প্রোগ্রামিং (C Programming)

সি বা সি++ না জেনে আপনি সত্যিকারের প্রোগ্রামার হতে পারবেন না। এটি একটি খুব দৃঢ় বিবৃতি তবে আমি এটি আমার অভিজ্ঞতা থেকে বলছি।

এটি সেই ল্যাঙ্গুয়েজগুলির মধ্যে একটি যা আপনার অবশ্যই জানা উচিত। আমি আমার একাডেমিকের সময় সি শিখেছি এবং পথে অনেকগুলি মূল প্রোগ্রামিং কনসেপ্ট সম্পর্কে ধারনা নিয়েছি যেমন উদাহরণসরূপঃ স্ট্রাকচার, অ্যারে, পয়েন্টার, মেমরি ম্যানেজমেন্ট ইত্যাদি।

সি এখনও প্রোগ্রামিংয়ের জন্য সর্বাধিক পছন্দের ল্যাঙ্গুয়েজ এবং এটি গত দুই বছর থেকে জাভা’র সাথে একটি শক্ত প্রতিযোগিতা করছে।

আপনি যদি এই দুর্দান্ত ল্যাঙ্গুয়েজটি শিখতে চান তবে সি প্রোগ্রামিং শেখা শুরু করার জন্য একটি ভাল জায়গা।

এটিও একটি পুরানো প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ যা বর্তমানে ৪ দশকেরও বেশি সময় ধরে আছে।

আপনি যদি সি এর পরিবর্তে সি++ শিখতে চান তবে এটিও খারাপ নয় কারণ এগুলি বেশ অনুরূপ।

এটি গেম ডেভেলপারদের পক্ষে উচ্চতর পারফরম্যান্সের কারণে গুরুত্বপূর্ণ লল্যাঙ্গুয়েজগুলির মধ্যে একটি।

৫. স্কালা (Scala)

স্কালা হ’ল এমন ল্যাঙ্গুয়েজ যা গত ২০ বছরের সেরা অনুশীলনের উপর ভিত্তি করে তৈরি হয়েছিল। এটি একটি ফাংশনাল প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজও। তাই এটি অবজেক্ট-ওরিয়েন্টেড প্রোগ্রামিংয়ের চেয়ে আলাদা দৃষ্টান্ত দেয় যা আপনার চিন্তাভাবনা এবং কোড বোধকে উন্নত করবে।

যদিও অনেকগুলি ফাংশনাল প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ উপলভ্য আছে যেমনঃ হাস্কেল কিন্তু আমি স্কালাকে বেছে নিয়েছি কারণ একজন জাভা ডেভেলপার হিসাবে, আমি বুঝেছি স্কাল শেখা হাস্কেল শেখার চেয়ে সহজ।

কেউ এটিকে চ্যালেঞ্জ হিসাবে গ্রহণ করতে পারে এবং হাস্কেলকেও শিখতে পারে তবে ব্যবহারিক উদ্দেশ্যে, আমি মনে করি স্কালা শেখা জাভা ডেভেলপারদের পক্ষে আরও প্রাসঙ্গিক।

সি++ প্রোগ্রামারদের জন্য, হাস্কেল আমার কাছে আরও বোধগম্য। সত্যি কথা বলতে, আপনি যে কোনও ফাংশনাল প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ বেছে নিতে পারেন তবে বাণিজ্যিক চাহিদা রয়েছে এমন একটি চয়ন করতে পারেন।

একজন পেশাদার ডেভেলপার হিসাবে, আমি আমার সময়কে এমন কিছুতে বিনিয়োগ করতে পছন্দ করি যা আমার কেরিয়ারে ব্যবহার করা যেতে পারে এবং আপনি যদি স্কালা শিখতে চান তবে Beginning Scala Programming একটি ভাল কোর্স, শুরু করার জন্য।

আপনি অনেকগুলি প্রোগ্রামিং ভাষা শিখেন না কেন, পেশাদার কোডার হওয়ার জন্য আপনাকে অবশ্যই ক্লিন কোডিং এবং ডিজাইনের নীতিগুলি মেনে চলতে হবে। এটি সেই দক্ষতা যা আপনাকে আপনার প্রোগ্রামিং ক্যারিয়ারে সবচেয়ে সহায়তা করে।

আদর্শভাবে, একজন প্রোগ্রামারের টুলসেটে এমন একটি ল্যাঙ্গুয়েজ অন্তর্ভুক্ত করা উচিত যা সি বা সি++ এর মতো সিস্টেমের কাছাকাছি, জাভা, পাইথন, বা সি ++ এর মতো একটি অবজেক্ট-ভিত্তিক ভাষা, স্কালা বা হাস্কেলের মতো একটি কার্যকরী প্রোগ্রামিং ভাষা, পার্ল, পাইথনের মতো একটি শক্তিশালী স্ক্রিপ্টিং ল্যাঙ্গুয়েজ রুবি এবং জাভাস্ক্রিপ্ট। তবে হ্যাঁ, জাভাস্ক্রিপ্টের কোনও রিপ্লেসমেন্ট নেই।

শেষ কথা

ধন্যবাদ, আপনি পোস্টটি সম্পূর্ণ শেষ করেছেন… আপনি যদি এই প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ পছন্দ করেন তবে আপনার বন্ধু এবং সহকর্মীদের সাথে শেয়ার করুন।

আপনার যদি কোনও প্রশ্ন বা প্রতিক্রিয়া বা অন্য কোনও প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ থাকে যা আপনি মনে করেন প্রতিটি প্রোগ্রামার শিখতে হবে তবে দয়া করে আমাদের কমেন্ট করুন।


from WizBD.Com
Source url: https://ift.tt/2Zh7W4g
Tags: Books Free Download PDF, Bangla Jokes, Jobs
পোষ্ট ভালো লাগলে শেয়ার করবেন। আমাদের ফেসবুক পাইজ এ লাইক দিবেন। আমরা সকল পোষ্ট ফেসবুক এ শেয়ার করে থাকি।

Comments

Popular posts from this blog

সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন এর A to Y টিউটোরিয়াল :: [YouTube SEO Bangla Tutorial]

Keyword Rank Monitoring! (Bangla SEO Tutorial)

বিসিএস এর জন্য প্রয়োজনীয় সব বই ও নোট ডাউনলোড করে নিন [প্রিলি+রিটেন+ভাইভা]

আসসালামুআলাইকুম, সবাই কেমন আছেন? আশা করি
সবাই ভালো আছেন, আজ আমি আপনাদের এর
নিয়ে আসলাম অনেকগুলু BCS এর বই এর
কালেকশন। বইগুলু ডাউনলোড করে রাখুন কাজে
লাগবে। BCS প্রিলিমিনারির জন্য বইসমূহ: 1. প্রিলি বাংলা (সাহিত্য) 2. বাংলা ব্যাকরণ: 3. বাংলা প্রশ্নব্যাংক (বিসিএস ও ব্যাংক) 4. প্রফেসর’স বাংলা 5. প্রফেসর’স ইংরেজি 6. প্রফেসর’স আন্তর্জাতিক বিষয়াবলি 7. প্রফেসর’স বাংলাদেশ বিষয়াবলি 8. প্রফেসর’স বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি 9. এসিউরেন্স ডাইজেস্ট 10. ওরাকল মানসিক দক্ষতা 11. ওরাকল গাণিতিক যুক্তি 12. লাল নীল দীপাবলি 13. ইজি কম্পিউটার 14. গ্রন্থ সমালোচনা- মোহসিনা নাজিলা সবগুলু বই এর ডাউনলোড লিঙ্ক একসাথে দিয়ে
দিলাম: click here to download সৌজন্যেঃ নিত্য নতুন টিপস পেতে
নিয়মিত
NewTrickBD.GQভিজিট করবেন এবং
সবচেকম টাকায় সাইট তৈরী
করে টাকা ইনকাম করুন 

স্বল্পমুল্যে ওয়াপসাইট বানিয়ে ঘরে বসেই
প্রতিদিন ৫০০ থেকে ৬০০ টাকা ইনকাম করতে
কল করুন। 01700535894

এমবিএ শিক্ষার্থীদের সবার আগে যে ৫টি কাজ করা উচিত

আপনি ভালো ক্যারিয়ার গড়তে চান, চাকরিতে উন্নতি করতে চান, কিংবা নতুন ব্যবসা খুলতে চান- যে কারণেই এমবিয়ে করুন না কেন, এ সুবিধাগুলো নিতে হলে কিছু বিষয় আপনাকে অবশ্যই পালন করতে হবে। এমবিএ শুধু কোনো ডিগ্রিই নয়, এটা তার চেয়েও বেশি কিছু। আপনার সময় ও এনার্জি ব্যয় করে অর্জিত এ ডিগ্রিকে ঠিকভাবে কাজে লাগাতে হলে নির্দিষ্ট কিছু কাজ করতে হবে। ফরচুন ম্যাগাজিনে দেয়া সাক্ষাৎকারে শীর্ষস্থানীয় একটি প্রতিষ্ঠানের সিইও শেইলা মারসেলো এ বিষয়গুলোই তুলে ধরেছেন। রিপোর্টটি প্রকাশ করেছে বিজনেস ইনসাইডার। ১. নিজের সীমানার বাইরে আসুন আপনি নির্দিষ্ট একটি বিষয় নিয়ে পড়াশোনা করলেও তার বাইরের বিষয়গুলো সম্পর্কেও খবর রাখুন। মার্কেটিংয়ের কোর্স করলে যে আপনার ফাইন্যান্স সম্পর্কে কোনো জ্ঞান থাকা যাবে না, এ ধারণা বাদ দিন। নিয়োগকারী প্রতিষ্ঠান শুধু একটা বিষয় জানা মানুষ পছন্দ করে না, তারা অনেকগুলো বিষয় জানা মানুষকে চায়। অন্য বিষয়গুলো আপনি কত তাড়াতাড়ি গ্রহণ করতে পারেন ও শিখতে পারেন এটা আপনার দক্ষতা প্রমাণ করে। অনেককিছু জানা একটা ভালো গুণ। ২. যোগাযোগ বাড়ান
আপনার যতো বেশি মানুষের সঙ্গে যোগাযোগ ও পরিচয় হবে, ততো ভালো ফলাফল পাবেন। এজন্য খ…